বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এক বিন্দু অক্সিজেন মানুষকে বাঁচাবে, এক টুকরো স্বপ্ন শিশুকে বাঁচাবে ! শৈশব পেড়িয়ে কৈশোর দেখিনি, কালকে আমার বিয়ে! শোকের মাসে জবি সাংবাদিকদের নির্বাচন, গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কার্যক্রমে ফলাফল স্থগিত বামনায় সাংবাদিকদের মাঝে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ চরাঞ্চল ঘুরে করোনা টিকার ফ্রি নিবন্ধন করাচ্ছেন ইউপি চেয়ারম্যান চরফ্যাশনে যুবককে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশ অবরুদ্ধ তৃতীয় দিনেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বাড়ি ফিরেছে জবি শিক্ষার্থীরা “সেরা রাঁধুনীতে ফাষ্ট রানার্স আপ নাদিয়া নাতাশা” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অক্টোবরে করোনা মোকাবিলায় মোদির মন্ত্রিসভায় রদবদল, শপথ নিলেন ৪৩ মন্ত্রী

সম্রাট ও খালেদের স্ত্রী-ভাইসহ পাঁচজনকে তলব

আলোরদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশিত হয়েছেঃ বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১৪৩ বার পড়া হয়েছে
ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট ও খালেদ মাহমুদ ভূইয়া। -আলোর দেশ


আলোর দেশ, ঢাকা :

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের স্ত্রী ও বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূইয়ার স্ত্রী ও ভাইসহ পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের অনুসন্ধান দলের পক্ষ থেকে সম্প্রতি তাঁদের তলব করে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এঁদের মধ্যে খালেদ মাহমুদের স্ত্রী সুরাইয়া আক্তার, খালেদের ভাই মাসুদ মাহমুদ ভূঁইয়া ও খালেদের আরেক ভাই হাসান মাহমুদের স্ত্রী মনসুরা ইয়াসমিনকে ১২ জানুয়ারি দুদকে হাজির হতে বলা হয়েছে। ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের স্ত্রী শারমিন চৌধুরী ও সম্রাটের ভাই রফিককে ১৩ জানুয়ারি দুদকে হাজির হতে বলা হয়েছে।

চিঠিতে তাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট ও তিন বছরের আয়কর রিটার্নের কপি নিয়ে আসতে বলা হয়েছে।

গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান শুরু হলে প্রথম দিনই রাজধানীর ইয়াংমেনস ফকিরাপুল ক্লাবে অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে গ্রেপ্তার হন ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক (পরে বহিষ্কার করা হয়) খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া। তাঁর বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচার আইনে আলাদা মামলা করে র‍্যাব। ৫ কোটি ৫৮ লাখ ১৫ হাজার ৮৫৯ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে গত ২১ অক্টোবর মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। মামলার তদন্ত চলছে।

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর আবারও আলোচনায় আসে সম্রাটের নাম। তবে তাঁকে গ্রেপ্তারে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত সময় লেগে যায়। সহযোগী আরমানসহ সম্রাটকে কুমিল্লা থেকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। বন্য প্রাণীর চামড়া রাখার অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ছয় মাসের কারাদণ্ডের পাশাপাশি সম্রাটের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা হয়। মাদক পাওয়ায় আরমানকেও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ২ কোটি ৯৪ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ১২ নভেম্বর তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক জাহাঙ্গীর আলম।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© 2020 সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আলোরদেশ লিমিটেড। এই সাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া কপি করা বেআইনি।
প্রযুক্তি সহযোগিতায়ঃ UltraHostBD.Com
RtRaselBD