মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
গুম হওয়া বাবাকে ফিরে পাওয়ার আকুতি জবি শিক্ষার্থীর কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক হলেন জবির নাহিদ মনগড়া সংবাদ প্রচারের অভিযোগে দেশ রুপান্তরকে ছাত্রলীগের আইনি নোটিশ শেখ হাসিনার পদ্মাসেতু; দক্ষিনাঞ্চলবাসীর এবারের ঈদ অনেক নিরাপদ-আনন্দময় : সুভাষ চন্দ্র বানবাসী মানুষের জন্য ১৭২০ টন চাল, আড়াই কোটি টাকা বরাদ্দ ডলারের বিপরীতে আবারও মান কমলো টাকার জবির সিএসই অ্যালমনাইয়ের নতুন কমিটি : সভাপতি মানিক,সম্পাদক বশির মহানবীকে নিয়ে কটুক্তি, ভারতীয় পণ্য বয়কটের আহ্বান জবি শিক্ষার্থীদের মধ্যরাত থেকে সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণের ঘটনার খোঁজ রাখছেন প্রধানমন্ত্রী সীতাকুণ্ডের বিএম ডিপো মৃত্যুপুরী হওয়ার যেসব কারন

ভারতে করোনায় আক্রান্ত ৫৭৩৪, মৃত্যু ১৬৬ জনের

আলোরদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশিত হয়েছেঃ বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩১০ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
ভারতে ২১ দিনের লকডাউনের চলতি সপ্তাহই হলো শেষ সপ্তাহ। তবে বাড়তে পারে লকডাউনের দিনক্ষণ। অবশ্য তা বোঝা যাবে শনিবার (১১ এপ্রিল)। ইতোমধ্যে দেশজুড়ে ৭০টি এলাকা চিহ্নিত করা হয়েছে। সিল করা হয়েছে সেই সব সংক্রামক এলাকা।

তারপরেও ভারতে সংক্রমণ বা মৃত্যু, কোনোটাই আটকানো যাচ্ছে না। গত ৩৬ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসের কারণে দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩২ জনের মত। ৭৭৩ জন নতুন করে আক্রান্ত।

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাত অব্দি মোট ৫ হাজার ৭৩৪ জন সংক্রমিত হয়েছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬৬ জন। মোট ৪১১ জন কোভিড-১৯ রোগ থেকে সেরে উঠেছেন। দিন দিন যে হারে আক্রান্ত বাড়ছে, তার সামনে সুস্থ হওয়ার সংখ্যাটা মোটেই বেশি নয়।

পরিসংখ্যান বলছে, ভারতে আক্রান্তদের পাঁচ শতাংশের এক শতাংশই রয়েছেন মহারাষ্ট্রে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওয়েবসাইট বলছে, বুধবার বিকেল পর্যন্ত সে রাজ্যে সংক্রমিত মোট ১ হাজার ১৮। দেশের মধ্যে সর্বাধিক, ৬৪ জন মারা গেছে মহারাষ্ট্রে।

এছাড়া কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে দেশটির বাণিজ্যনগরী মুম্বাইকে হটস্পট ঘোষণা করা হয়েছে। মুম্বাইতে এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯০। এছাড়া দিল্লির ২০টি এলাকা করোনার কারণে সিল করা হয়েছে।

গোটা দেশের বাইরে বেরলে মাস্ক ব্যবহার আবশ্যিক করা হয়েছে। এছাড়া হটস্পট বা মহামারি চিহ্নিত এলাকা নির্দেশ না মানলে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারায় (সরকারি নির্দেশ অমান্য) গ্রেফতার করা হতে পারে বলে ঘোষণা জারি করা হয়েছে।

এছাড়া স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে তামিলনাড়ু। দক্ষিণী এই রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৯০। আক্রান্তের নিরিখে এরপরে রয়েছে, তেলেঙ্গানা (৪২৭), উত্তরপ্রদেশ (৩৪৩), কেরলা (৩৩৬), রাজস্থান (৩২৮) ও অন্ধ্রপ্রদেশ (৩০৫)। মৃত্যুর সংখ্যায় অবশ্য মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে গুজরাত ও মধ্যপ্রদেশ।

তবে দেশের নিরিখে এখনও অব্দি কিছুটা হলেও সন্তোষজনক অবস্থায় আছে পশ্চিমবঙ্গ। রাজ্যটিতে আক্রান্তে সংখ্যা ৭১, মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের। রাজ্যটিতে সুস্থ হয়েছে ১৩ জন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© 2020 সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আলোরদেশ লিমিটেড। এই সাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া কপি করা বেআইনি।
প্রযুক্তি সহযোগিতায়ঃ UltraHostBD.Com
RtRaselBD