বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৫:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এক বিন্দু অক্সিজেন মানুষকে বাঁচাবে, এক টুকরো স্বপ্ন শিশুকে বাঁচাবে ! শৈশব পেড়িয়ে কৈশোর দেখিনি, কালকে আমার বিয়ে! শোকের মাসে জবি সাংবাদিকদের নির্বাচন, গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কার্যক্রমে ফলাফল স্থগিত বামনায় সাংবাদিকদের মাঝে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ চরাঞ্চল ঘুরে করোনা টিকার ফ্রি নিবন্ধন করাচ্ছেন ইউপি চেয়ারম্যান চরফ্যাশনে যুবককে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশ অবরুদ্ধ তৃতীয় দিনেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বাড়ি ফিরেছে জবি শিক্ষার্থীরা “সেরা রাঁধুনীতে ফাষ্ট রানার্স আপ নাদিয়া নাতাশা” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অক্টোবরে করোনা মোকাবিলায় মোদির মন্ত্রিসভায় রদবদল, শপথ নিলেন ৪৩ মন্ত্রী

পুলিশ কমিশনারকে ঘুষ নিতে প্রস্তাব দিল যুগ্ম কমিশনার

আলোরদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশিত হয়েছেঃ শনিবার, ৬ জুন, ২০২০
  • ১৭২ বার পড়া হয়েছে
ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম ও ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার মো. ইমাম হোসেন।

আলোর দেশ ডেস্ক:

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলামকে পার্সেন্টেজ (সুবিধা) নিতে প্রস্তাব দিয়েছেন যুগ্ম কমিশনার (লজিস্টিকস) মো. ইমাম হোসেন। এমন অভিযোগ করে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদকে চিঠি দিয়ে ওই কর্মকর্তাকে বদলির অনুরোধ করেছেন ডিএমপি কমিশনার।

গত ৩০ মে ডিএমপি সদর দপ্তরের প্যাডে আইজিপিকে এ চিঠি দেন ডিএমপি কমিশনার। চিঠির স্মারক নং- ডিএমপি (সঃদঃ)/প্রশাসন/এ-৫১-২০২০/১০০৮।

চিঠিতে ডিএমপি কমিশনার উল্লেখ করেন, ‘ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার (লজিস্টিক) মো. ইমাম হোসেন বিপিএস-সেবা (বিপিএম-৭১৯৯০৭১৪০৫) একজন দুর্নীতিপরায়ণ কর্মকর্তা। ডিএমপির বিভিন্ন কেনাকাটায় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। তদুপরি তিনি ডিএমপির কেনাকাটায় স্বয়ং পুলিশ কমিশনারের নিকট পার্সেন্টেজ গ্রহণের প্রস্তাব উপস্থাপন করেছেন। ফলে উক্ত কর্মকর্তাকে  ডিএমপিতে কর্মরত রাখা সমীচিন নয় বলে প্রতীয়মান হয়েছে।’   

আইজিপিকে পাঠানো ডিএমপি কমিশনারের চিঠি।

আইজিপিকে অনুরোধ করে মোহা. শফিকুল ইসলাম লিখেছেন, ‘এমতাবস্থায়, ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার মো. ইমাম হোসেন বিপিএম-সেবাকে জরুরি ভিত্তিতে অন্যত্র বদলি করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধে করা হলো।’

তবে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের উপ-কমিশনার মো. ওয়ালিদ হোসেন চিঠির বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন,  ‘গোপনীয় কিছু থাকলে তা মিডিয়া বিভাগে আসে না।’

চিঠিটি পুলিশ সদর দপ্তরে পৌঁছায়নি বলে জানিয়েছেন পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা। তিনি জানান, এই বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তরে এখনো কোনো কিছু পৌঁছায়নি। এমন করেসপনডেন্স এলে বা ইস্যুজ এলে পুলিশ সদর দপ্তর তা প্রপার ওয়েতে দেখবে।

এ বিষয়ে জানতে ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলামকে ফোন করা হলে তিনি রিসিভ করেননি। আর ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার মো. ইমাম হোসেনকে ফোন দেওয়া হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© 2020 সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আলোরদেশ লিমিটেড। এই সাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া কপি করা বেআইনি।
প্রযুক্তি সহযোগিতায়ঃ UltraHostBD.Com
RtRaselBD