জীবনের ঝুঁকি যতই থাকুক, নেত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়নে সর্বদা কাজ করব : রিপন

0
31
কামরুল হাসান রিপন (ফাইল ছবি)

আলোর দেশ, ঢাকা :

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ  স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন বলেন, ‘শেখ হাসিনা র্নিদেশ দিয়েছেন দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। এরপর জীবনের ঝূকি নিয়েই নেত্রীর নির্দেশ বাস্তবয়ান করেছি। জীবনের ঝুকি যতই থাকুক নেত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়নে পূর্বের ন্যয় সর্বদা কাজ করে যাব। আমার সঙ্গে একঝাক তরুণ সাবেক-বর্তমান ছাত্রনেতা, আওয়াম লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের অসংখ্য নেতাকর্মী সার্বক্ষনিক সাথে ছিল। তাদের সাথে রেখেই মানুষের জন্য কাজ করে যাব।’

বৃহস্পতিবার রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ছাত্রলীগ আয়োজিত মাস্ক বিতরন কর্মসূচি শেষে ঢাকা-০৫ আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষ্যে মতবিনিময় সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘করোনার এই সময়ে কাউকেই এই এলাকায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেখিনি। কিন্তু আমি আপনাদেরই সন্তান। সেই শৈশব থেকেই আপনাদের পাশে ছিলাম, এখনও আছি এবং ভবিষ্যতেও আপনাদের পাশে থাকবো। সেজন্য আপনাদের সকলের দোয়া এবং সহযোগীতা চাই।’

কামরুল হাসান রিপন বলেন, ‘ছাত্রজীবন থেকেই সাধারণ মানুষের পক্ষে কাজ করে চলেছি আমি। এখানে অনেক মুরুব্বী রয়েছেন যারা আমার সম্পর্কে জানেন। মাস্তান, সন্ত্রাস, ভূমিদস্যু, চাদাবাজদের বিপক্ষে আমার সংগ্রাম সেই ছাত্রজীবন থেকেই। অনেকেই রাজনীতি করে পকেট ভারী করার জন্য। মাস্তানি-সন্ত্র্রাসী, লিলা- খেলার মাধ্যমে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করার জন্য। কিন্তু আমি রাজনীতি করেছি মানুষের সেবা করার জন্য, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। নিরীহ মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবা করাই আমার রাজনীতির মূল লক্ষ্য।’

তিনি বলেন, ‘আমার বিশ্বাস আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলে নৌকাকে বিশাল ভোটে জয় উপহার দিতে পারবো। শুধু তাই নয়, অত্র এলাকার জনসাধারণ এখনও অবহেলিত। বিভিন্ন ধরণের সামাজিক প্রতিকূলত লক্ষণীয়। কাঁচা রাস্তা, ড্রেনেজ সিস্টেমে সমস্যা। অনেক কারখানা রয়েছে যারা বর্জ্য পেলে পরিবেশ নষ্ট করছে। আমি এগুলো আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে পরিবেশ দূষণ রোধ করতে চাই। এছাড়া অত্র এলাকায় নেই কোন উন্নতমানের আধুনিক কমিউনিটি সেন্টার। তাই আমার বিশ্বাস এমপি হতে পারলে আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে অনেক বড় বাজেট এনে সেগুলো নিরসনে কাজ করতে পারবো। পাশাপাশি সকল সমস্যা যাচাই বাছাই করে তা অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সমাধান করবো।’

মাস্ক বিতরণ ও মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ৬১ নাম্বার ওয়ার্ড ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক নবাব মোহাম্মদ নাঈম। সঞ্চালনায় ছিলেন সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ রাফিদ হাসান। এসময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ এমনকি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, মাহামারী করোনা ভাইরাসের কবলে পরে সমগ্র বিশ্বের ন্যয় বাংলাদেশও স্থবির হয়ে আছে। এমন দুঃসময়ে অসহায়, সুবিধাবঞ্চিত ও মেহনতি মানুষের সহায়তা এবং  বিভিন্ন সামাজিক কার্মকান্ড অব্যাহত রেখেছেন কামরুল হাসান রিপন। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই সচেতনতামূরক লিফলেট বিতরণ, বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সুরক্ষা মাস্ক, ত্রাণ সামগ্রী, পবিত্র মাহে রমজানে ইফতার বিতরণ এবং হতদরিদ্র-মেহনতি মানুষের ঘরে ঘরে ঈদ উপহার পৌঁছে দিয়ে সক্রিয়ভাবে মাঠে থেকে কাজ করছেন কামরুল হাসান রিপন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here