জবি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ‘ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা’ শেষ হচ্ছে আগামীকাল

0
32

জবি প্রতিনিধি :

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের (১৬-৩০)জুলাই চলমান ভার্চুয়াল সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা আগামীকাল ৩০ জুলাই (বৃহস্পতিবার) শেষ হচ্ছে।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে করোনাকালীন সময়ে শিক্ষার্থীদের সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে করোনা সচেতনামূলক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ভিন্নধর্মী এই আয়োজন করে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সচেতনামূলক  কার্যক্রমের অংশ হিসেবে জবিসাকে  সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা আয়োজনের ঘোষণা দেয়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে সৃজনশীলতা বৃদ্ধির মাধ্যমে জনসচেতনতা সৃষ্টি প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য।

আবৃত্তি, গান, অভিনয়, বক্তৃতা, পোস্টার ও স্থিরচিত্র এই পাঁচটি ক্যাটাগরিতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। একজন প্রতিযোগি সর্বোচ্চ ৩টি বিভাগে অংশগ্রহণ করতে পারবে। ১৬ থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত এই প্রতিযোগিতা শেষে প্রতি বিভাগ থেকে সেরা তিনজন করে মোট ১৫জনকে পুরষ্কার দেয়া হবে। এছাড়া মুজিবশতবর্ষকে কেন্দ্র করে অংশগ্রহণকারী সেরা ১০০জন শিক্ষার্থীকে সামাজিক সচেতনামূলক কার্যক্রমে অংশগ্রহণের সনদপত্র পাবেন।

সংগঠন সূত্রে জানা যায়, করোনা ও সচেতনার সাথে সম্পৃক্ত বিষয়কে উপজীব্য করে অংশগ্রহণকারীকে তার নিজ ইভেন্টে ফুটিয়ে তুলতে হবে। প্রতি বিভাগে অংশগ্রহণকারীকে তার বিভাগ সংশ্লিষ্ট বিষয়ের উপস্থাপনা নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে আপলোড করতে হবে এবং আপলোড করার সময় হ্যাশট্যাগ (#জগন্নাথ_বিশ্ববিদ্যালয়_সাংস্কৃতিক_কেন্দ্র) এবং (#করোনা_সময়_প্রতিযোগিতা) ব্যবহার করতে হবে ও ইভেন্টের নাম উল্লেখ করতে হবে।

আয়োজন সম্পর্কে জবি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক সাঈদ মাহাদী সেকেন্দার বলেন,আমরা ইতোমধ্যে আমাদের আয়োজনে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করতে সক্ষম হয়েছি।প্রতিটি ইভেন্টে শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটছে। আমাদের মূল উদ্দেশ্যে বৈশ্বিক করোনা মহামারী সম্পর্কে সচেতন করা,এক্ষেত্রে আমরা অনেকটা সফল হয়েছি বলে মনে করি।আয়োজনে শিক্ষার্থীদের আশানুরূপ সাড়া পেয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা-কার্যক্রম স্বাভাবিক হলে  জবিসাকের ভার্চুয়াল আয়োজনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের সনদপত্র ও বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here