শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এক বিন্দু অক্সিজেন মানুষকে বাঁচাবে, এক টুকরো স্বপ্ন শিশুকে বাঁচাবে ! শৈশব পেড়িয়ে কৈশোর দেখিনি, কালকে আমার বিয়ে! শোকের মাসে জবি সাংবাদিকদের নির্বাচন, গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কার্যক্রমে ফলাফল স্থগিত বামনায় সাংবাদিকদের মাঝে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ চরাঞ্চল ঘুরে করোনা টিকার ফ্রি নিবন্ধন করাচ্ছেন ইউপি চেয়ারম্যান চরফ্যাশনে যুবককে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশ অবরুদ্ধ তৃতীয় দিনেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বাড়ি ফিরেছে জবি শিক্ষার্থীরা “সেরা রাঁধুনীতে ফাষ্ট রানার্স আপ নাদিয়া নাতাশা” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অক্টোবরে করোনা মোকাবিলায় মোদির মন্ত্রিসভায় রদবদল, শপথ নিলেন ৪৩ মন্ত্রী

যিনি জিতলে এলাকাবাসী শান্তিতে থাকবে, সৃষ্টিকর্তা যেন তাকেই জিতায়

আলোরদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশিত হয়েছেঃ বুধবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১৮৫ বার পড়া হয়েছে
ডিএসসিসি ৩৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুর রহমান মিয়াজী।

সোহাগ রাসিফ :

যিনি জিতলে এলাকাবাসী শান্তিতে থাকবে, সৃষ্টিকর্তা যেন তাকেই জিতায় বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতাভুক্ত ৩৭ নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর আব্দুর রহমান মিয়াজী। এবারের সিটি নির্বাচনেও তিনি আওয়ামী লীগ কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে মনোনীত হয়েছেন।

তিনি বলেন, “দীর্ঘ ৫ বছর ধরে এ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছি। শুধুমাত্র ঢাকার বাইরে না থাকলে প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে শুক্র-শনিবারে স্ব-শরীরে পুরো ওয়ার্ডটি ঘুরে দেখি, নাগরিক সমস্যা নিয়ে মানুষের সাথে কথা বলি। কার কি সমস্যা, তা সমাধান করি। এ ওয়ার্ডটি পুরান ঢাকার ব্যবসায়িক প্রাণকেন্দ্র। কোন ব্যবসায়ী বলতে পারবেনা যে আমাদের দ্ধারা ডিস্টার্ব হয়েছে। যে নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডবাসী শান্তিতে বাস করতে পারবে, ব্যবসায়ীরা কোন প্রকার ডিস্টার্ব না হবে সৃষ্টিকর্তা যেন তাকেই জয়ী করে।”

সরোজমিনে ওয়ার্ড ঘুরে দেখা যায়, এ ওয়ার্ডে ১৭ টি রাস্তা রয়েছে ,যার সবগুলোই পিচ ঢালাই করা এবং পানি নিস্কাশনের জন্য উভয়পাশে করা হয়েছে ড্রেন। এখানে নাগরিক সমস্যা হিসেবে দেখা যায়- কমিউনিটি সেন্টার, খেলার মাঠ ও জিমনেশিয়ামের চাহিদা রয়েছে, যার একটিও নেই এ ওয়ার্ডে। এ বিষয়ে আব্দুর রহমান মিয়াজী বলেন, এ ওয়ার্ডের সিটি কর্পোরেশন ভবনটি অনেক বড়। ভবনটিতে কমিউনিটি সেন্টার ও জিমনেসিয়াম করার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু মেয়রসাব (সাঈদ খোকন) কাউন্সিলর কার্যালয়কে অল্প পরিমান জায়গা দিয়ে পুরো ভবনটি ‘সাজেদা ফাউন্ডেশন’কে ইজারা দিয়ে দিলেন। আর খেলার মাঠ করার যায়গা এই ব্যস্থ এলাকায় নেই। তবে আবার নির্বাচিত হলে কমিউনিটি সেন্টার, খেলার মাঠ ও জিমনেশিয়াম তৈরি করার অঙ্গিকারকরেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© 2020 সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আলোরদেশ লিমিটেড। এই সাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া কপি করা বেআইনি।
প্রযুক্তি সহযোগিতায়ঃ UltraHostBD.Com
RtRaselBD