বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
এক বিন্দু অক্সিজেন মানুষকে বাঁচাবে, এক টুকরো স্বপ্ন শিশুকে বাঁচাবে ! শৈশব পেড়িয়ে কৈশোর দেখিনি, কালকে আমার বিয়ে! শোকের মাসে জবি সাংবাদিকদের নির্বাচন, গঠনতন্ত্র বহির্ভূত কার্যক্রমে ফলাফল স্থগিত বামনায় সাংবাদিকদের মাঝে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ চরাঞ্চল ঘুরে করোনা টিকার ফ্রি নিবন্ধন করাচ্ছেন ইউপি চেয়ারম্যান চরফ্যাশনে যুবককে ফাঁসাতে গিয়ে পুলিশ অবরুদ্ধ তৃতীয় দিনেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে বাড়ি ফিরেছে জবি শিক্ষার্থীরা “সেরা রাঁধুনীতে ফাষ্ট রানার্স আপ নাদিয়া নাতাশা” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অক্টোবরে করোনা মোকাবিলায় মোদির মন্ত্রিসভায় রদবদল, শপথ নিলেন ৪৩ মন্ত্রী

পায়ে হেঁটে ১৫০ কি.মি.পথ পরিভ্রমণ করলেন জবির ৭ রোভার

আলোরদেশ ডেস্ক
  • প্রকাশিত হয়েছেঃ রবিবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৩৬ বার পড়া হয়েছে

জবি প্রতিনিধি:

রোভারিং-এর সর্বোচ্চ সম্মান ‘প্রেসিডেন্ট’স রোভার স্কাউট অ্যাওয়ার্ড’ অর্জনের লক্ষ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রোভার স্কাউট গ্রুপের ৭ জন রোভার ১৫০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পরিভ্রমণ শেষ করেছেন।

মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) রোভার স্কাউট গ্রুপের সেবা স্তরের এই ৭ রোভার নরসিংদী সদর থেকে ভৈরব, মাধবপুর, শায়েস্তাগঞ্জ, শ্রীমঙ্গল ও মৌলভীবাজার পর্যন্ত ১৫০ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পরিভ্রমণ শেষ করেন।

রোভার স্কাউট গ্রুপের সদস্যরা হলেন দলনেতা বিলাল হোসেন, সহকারী দলনেতা মো. কামরুল হাসান, সদস্য মো. নেছার উদ্দিন, সদস্য মামুনুর রশীদ।

গার্ল ইন রোভার গ্রুপের ৩ জন সদস্য হলেন দলনেতা সনিয়া আক্তার, সহকারী দলনেতা নুসরাত জাহান ইভা এবং সদস্য সোনিয়া আক্তার পুস্প।

রোভার স্কাউট গ্রুপের দলনেতা মো. বিলাল হোসেন জানান, তারা গত ২০ ডিসেম্বর নরসিংদি থেকে পায়ে হেঁটে ভৈরব পৌছে ২১ ডিসেম্বর ভোরে পায়ে হেঁটে আবার পথ পরিভ্রমণ শুরু করেন। এভাবে তারা মাধবপুর ও শায়েস্তাগঞ্জ যাত্রা বিরতি করে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় তারা শ্রীমঙ্গল পৌছে শ্রীমঙ্গলের উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলামের সাথে সাক্ষাৎ করেন।

তারা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছ থেকে প্রত্যয়ন পত্র সংগ্রহ করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে তাদের রাত্রিযাপনের ব্যবস্থা করে দেন।

এরপর মঙ্গলবার সকাল ৮টায় ৭ সদস্যবিশিষ্ট রোভার স্কাউট গ্রুপটি মৌলভীবাজারের উদ্দেশ্যে আবার তাদের পদযাত্রা শুরু করেন।

পরিভ্রমণকারী দলের সদস্যরা জানান, ১৫০ কিলোমিটার পথ পরিভ্রমণকালে তারা ভৈরব, মাধবপুর, শায়েস্তাগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গলে যাত্রা বিরতি করেছে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৬টা থেকে ৭টার মধ্যে যাত্রা শুরু করে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় যাত্রা বিরতি করেছে এবং উপজেলা ও জেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে রাত্রিযাপন করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© 2020 সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত আলোরদেশ লিমিটেড। এই সাইটের কোনো কন্টেন্ট অনুমতি ছাড়া কপি করা বেআইনি।
প্রযুক্তি সহযোগিতায়ঃ UltraHostBD.Com
RtRaselBD